Home ফ্যাশন সিনেমা আমাকে এখনো টানেনা-নোবেল
সিনেমা আমাকে এখনো টানেনা-নোবেল

সিনেমা আমাকে এখনো টানেনা-নোবেল

0
0

অভি মঈনুদ্দীন : বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে মাইলফলক এক চলচ্চিত্রের নাম ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। এই চলচ্চিত্রের পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের কাছ থেকে জানা যায় এতে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব রাখা হয়েছিলো জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেতা আদিল হোসেন নোবেলকে। কিন্তু নোবেল চলচ্চিত্রে অভিনয়ে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন তখন। সেই নোবেল এখনো চলচ্চিত্রে অভিনয়ে অনাগ্রহ প্রকাশ করেন। ‘কেয়ামত থেকে কেয়মাত’র পর আরো বহু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন নোবেল। কিন্তু বরাবরই তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয়ে এড়িয়ে গিয়েছেন। কিন্তু কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে নোবেল বলেন,‘ সত্যি বলতে কী শুরু থেকেই আমার আগ্রহ ছিলো মডেলিং-এ। চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য নিজেকে কখনোই প্রস্তুত করিনি আমি। তাছাড়া চলচ্চিত্রে অভিনয়ে আমার তেমন কোন আগ্রহ ছিলোনা। আর এখনতো আগের সেই সময়ও নেই। এখনো যখন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাই, কোনরকম আগ্রহ বোধ কাজ করেনা। একেকজন শিল্পীর একেকটা কাজের প্রতি আগ্রহ থাকে, নেশা থাকে। আমার সব আগ্রহ শুধুমাত্র মডেরিং-কে ঘিরেই। এর বাইরে টুকটাক নাটকে অভিনয় করি। কিন্তু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রতি আমার কোনরকম আগ্রহ নেই।’ একসময়তো আপনি এবং প্রয়াত সালমান শাহ একসঙ্গে ফ্যাশন শো করতেন? ‘আমাদের শুরুটা ফ্যাশন শো দিয়েই , পরে আমি, ইমন (সালমান শাহ) এবং ইমরান একসঙ্গে তিনটি বিজ্ঞাপনের মডেল হয়েছিলাম। কিন্তু সেগুলো প্রচারে আসেনি। ইমন যখন কেয়ামত থেকে কেয়ামত ছবির কাজ শুরু করে তখন আমাকে প্রায়ই বলতো ‘নোবেল ভাই, আমিতো ফিল্মে চলে এলাম, আপনিও চলে আসুন।’ তারপরতো ইমন নিজেই আমাদের দেশীয় ফ্যাশনে একটা নিজস্ব ধারা তৈরী করেছিলো। কিন্তু দুর্ভাগ্য, তাকে অকালে হারাতে হলো আমাদের। ‘ খড়হবষু উধু, খড়হবষু ঘরমযঃ- আফজাল হোসেনের নির্দেশনায় ‘আজাদ বলপেন’র এই আইয়ুব বাচ্চুর গাওয়া এই জিঙ্গেলটি এখনো মানুষের হৃদয়ে গেঁথে আছে। নোবেলের প্রথম ব্যাপক দর্শকপ্রিয় বিজ্ঞাপন এটি। এরপর বহু বিজ্ঞাপনে মডেল হয়ে কাজ করেছেন। হয়েছেন মডেলিং জগতের রাজপুত্র। তবে এখন অনেকেই তাকে অনুকরণ কিংবা অনুসরণ করলেও নোবেলে কাউকেই তা করেননি।