Home গানের ভূবন দশ বছর পর অবশেষে সিনেমায়
দশ বছর পর অবশেষে সিনেমায়

দশ বছর পর অবশেষে সিনেমায়

0
0

বিনোদন প্রতিবেদক- প্রায় দশ বছর যাবত পেশাগতভাবে গান গেয়ে যাচ্ছেন ওস্তাদ ইয়াকুব আলীর সুযোগ্য সন্তান ইউসুফ আহমেদ খান। তবে এবারই প্রথম তিনি কোন সিনেমার গানে কন্ঠ দিয়েছেন। শহীদুল হক খানের নির্মানাধীন সিনেমা ‘যুদ্ধ শিশু’তে তিনি প্রথমবারের মতো প্লে-ব্যাক করেছেন। গানের কথা হচ্ছে ‘মাগো তোমায় আমি দু’চোখ ভরে দেখতে চাই’। গানটির সুর করেছেন কিংবদন্তী সঙ্গীত পরিচালক শেখ সাদী খান এবং সঙ্গীতায়োজন করেছেন উজ্জ্বল সিনহা। এরইমধ্যে গানটির রেকর্ডিং-এর কাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রথমবারের মতো প্লে-ব্যাকে কন্ঠ দেয়া এবং শেখ সাদী খানের সুরে গান গাওয়ার বিষয়টিকে সঙ্গীত জীবনের অনেক বড় অর্জন হিসেবে বিবেচনা করছেন ইউসুফ আহমেদ খান। ইউসুফ বলেন,‘ যদিও গানটি এখনো প্রকাশ হয়নি, কিন্তু যারাই আমার কাছে গানটি শুনছেন তারাই বলছেন গানটি খুবই ভালো হয়েছে। আমি কৃতজ্ঞ পরিচালক শহীদুল হক খান স্যার এবং আমাদের সঙ্গীতাঙ্গনের গর্ব শেখ সাদী খান স্যারের কাছে। তারা দু’জন আমাকে জীবনে প্রথম প্লে-ব্যাক করার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। আমি অন্তর দিয়ে গানটি গেয়েছি।’ এদিকে নতুন আরো দুটি মৌলিক দ্বৈত গানের কাজ প্রায় শেষ করেছেন ইউসুফ আহমেদ খান। দিঠি’র সঙ্গে ‘চিঠি হয়ে উড়ে যা’ এবং প্রিয়াংকা গোপের সঙ্গে ‘কেন প্রশ্ন করিনি’ গান দুটির সঙ্গীতায়োজনের কাজ শেষ। শুধু দিঠি এবং প্রিয়াংকা কন্ঠ দিলেই গানের বাকী কাজ শেষ হয়ে যাবে। দুটি গানই লিখেছেন সাখাওয়াত হোসেন মারুফ। দিঠির গানের সুর সঙ্গীতায়োজন করেছেন মারুফ এবং প্রিয়াংকার সঙ্গে’র গানটির সুর করেছেন মারুফ , সঙ্গীতায়োজন করেছেন ইউসুফ। এদিকে গেলো ঈদে গানচিল থেকে লিরিক্যাল ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে ইউসুফের ‘একটা মন খারাপের দিনে’ এবং ‘সকাল হলো না আমার’ গান দুটির। দুটি গানের কথা ও সুর মারুফের এবং সঙ্গীতায়োজন করেছেন ইউসুফ। জানুয়ারিতে গানচিল থেকেই দুটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পাবে। ইউসুফের একমাত্র একক এ্যালবাম ‘একলা রাতের নদী’। এতে মোট দশটি গান আছে। গানগুলো লিখেছেন ফৌজিয়া হুদা এবং সুর করেছেন ইউসুফের বাবা ওস্তাদ ইয়াকুব আলী খান। সঙ্গীতায়োজন করেছিলেন বাসু দেব।
ছবি- মোহসীন আহমেদ কাওছার